Breaking News
Home / সংবাদ / আন্তর্জাতিক সংবাদ / হিন্দি সিরিয়াল দেখেই স্বামীকে হত্যার কৌশল শেখেন স্ত্রী!

হিন্দি সিরিয়াল দেখেই স্বামীকে হত্যার কৌশল শেখেন স্ত্রী!

পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো স্ত্রীর। স্বামীর সন্দেহ স্ত্রীর কারও সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। এ নিয়ে সংসারে লেগে ছিল অশান্তি।

কিন্তু কী করে স্বামীকে সরিয়ে দেওয়া যায়? স্ত্রী টিভির ক্রাইম শো আর হিন্দি সিরিয়াল দেখে ঠিক করেন, কীভাবে স্বামীকে হত্যা করবেন। আর সেভাবেই স্বামীকে হত্যা করে আট টুকরা করে কিছু অংশ মাটিচাপা দেন, আর কিছু অংশ ব্যাগে ভরে অন্যত্র ফেলে দেন। পরে তিনি থানায় গিয়ে নিখোঁজের ডায়েরি করেন।

আর এমন ঘটনাটি ঘটেছে, ভারতের দিল্লির অমৃত বিহার এলাকায়। যদিও এটি ছিল গত ১৪ ফেব্রুয়ারি। তবে সম্প্রতি বিষয়টি সামনে আসে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, কয়েক সপ্তাহ ধরে বাড়ির ভাড়াটিয়া নিখোঁজ থাকায় ঘরে প্রবেশ করেন বাড়িওয়ালা। এসে দেখেন ঘরের মেঝের কিছু অংশ ভাঙা আর পাশেই পড়েছিল মানবদেহের একটি আঙুল। পরে তিনি পুলিশ খবর দেন।

এ ঘটনায় পুলিশ জানায়, নিহত রাজেশের (৬৩) স্ত্রী সুনীতাই (৩৮) স্বামীকে খুন করেছেন। পুলিশ বলছে, সুনীতা ও রাজেশের বয়সের ব্যবধানের কারণেও তাদের মধ্যে কিছু সমস্যা ছিল। সুনীতাকে সন্দেহ করতেন রাজেশ। এক যুবকের সঙ্গে সুনীতার সম্পর্ক রয়েছে এমন অভিযোগ নিয়েও নিয়মিত ঝামেলা চলত ওই দম্পতির।
১৪ ফেব্রুয়ারি রাজেশকে খুন করার পরিকল্পনা করেন সুনীতা। পরিকল্পনামতো নিজের ছেলেকে প্রতিবেশীর বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এরপরই খাবার পানীয়ের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খেতে দেন রাজেশকে।

এতে স্বামী নিস্তেজ হয়ে পড়লে তার দেহ টুকরো টুকরো করে ব্যাগে ভরে রাখেন সুনীতা। ঘরের মেঝেতে কিছু অংশ পুঁতে রাখেন, বাকি অংশ বাইরে গিয়ে ফেলে আসেন।

এরপর পুলিশের কাছে গিয়ে স্বামীর নামে নিখোঁজ ডায়েরিও করে আসেন সুনীতা। পুরো ঘটনাটিই তিনি ঘটিয়েছেন টিভি সিরিয়ালের ক্রাইম শো দেখে। জেরায় সুনীতা এমন তথ্য জানিয়েছেন।

বর্তমানে তিহার জেলে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রয়েছেন সুনীতা। তাদের সন্তানকে আবাসিক হোমে পাঠানো হয়েছে।

সম্প্রতি একটি মামলায় মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেন, খুন, অপহরণ ইত্যাদির সঙ্গে পরকীয়ার একটা যোগ দেখা যাচ্ছে।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *